Bookmaker Bet365.com Bonus The best odds.

Full premium theme for CMS

একালের বড় সক্রেটিস

Written by মামুনুর রশীদ.

Блогът Web EKM Blog очаквайте скоро..

তিনি আমাদের শিখিয়েছেন সঙ্গীতের কড়ি, কোমল। শিখিয়েছেন বৃক্ষ, তরুলতা, আকাশের নক্ষত্রের নাম। নাটক সম্পর্কে তিনি বলতেন- নাটক হচ্ছে জীবনের সার, সারের সারাৎসার। কী অদ্ভূত সংজ্ঞা! নাটক হয়তো তাই। হাজার হাজার ঘন্টার মানুষের এত অভিজ্ঞতা কত ছোট্ট পরিসরে জীবন্ত মানুষকে দিয়ে প্রকাশ করা যায়।

তিনি Stephen Hawking এর বিজ্ঞানের বার্তাকে কত সহজে পৌঁছে দিতে চাইলেন আমাদের কাছে। বাংলাদেশে তিনিই প্রথম যিনি Stephen Hawking কে চিনলেন, জানালেন A brief histry of time- টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

কী প্রয়োজন ছিল তাঁর সারাদেশে ঘুরে বেড়ানোর? খুলনার ফুলতলা অথবা দিনাজপুরের পীরগঞ্জ, জয়পুরহাটের পাঁচবিবি, টাঙ্গাইলের মধুপুর, চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া, সিলেট সুনামগঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ঘুরে বেড়িয়ে, গান শিখিয়ে জীবনের দীর্ঘ সময় তিনি কাটিয়েছেন। ট্রেনে, বাসে, নৌকায়, রিকশায় চলতে চলতে তিনি গান গাইছেন নীরবে, অথবা বই পড়ছেন একাকী, সাথী থাকলে কথা বলে চলেছেন। নাগরিক জীবনেও তাঁর স্বস্তি নেই। ছায়ানট, আন্দধ্বনি, ফুলকি আছে। আবার ময়মনসিংহে নুরুল আনোয়ারের বাড়ির বারান্দাটাও টানে ঘন ঘন।

রবীন্দ্রসঙ্গীত সম্মিলনের সময় এসে যাচ্ছে। ঢাকার বাইরে করতে হবে। সেখানে গিয়ে সব ঠিক ঠাক করতে হবে। এদিকে জীবিকার বিষয় আছে।

কখনো মনে হয়েছে তিনি একটা কিছু করতে চান, কী করতে চান? দেশের মানুষকে জাগিয়ে তুলতে চান, শিল্পের শক্তি দিয়ে। একেবারেই ভেঙে যাওয়া শিক্ষা ব্যবস্থাটাকে কোথাও থেকে শুরু করা যায়? কিছু কিছু প্রাথমিক মানুষের সাথেও তিনি জড়িত হয়েছিলেন।

তাঁকে কখনোই রাষ্ট্র বা সরকারের কাছাকাছি যেতে দেখা যায় নি। সরকারকে তিনি এড়িয়েই চলতেন। প্রায়শই বলতেন দেশের যেকোনো সুকীর্তির মধ্যে সরকার ঢুকে গেলেই সর্বনাশ। সে সর্বনাশ যে এখন প্রান্তসীমায় এসে দাঁড়িয়েছে তা আর কোনো প্রশ্নের অপেক্ষা রাখে না।

অনেকের মতোই আমরা বড় অসহায় বোধ করেছি। দেশের ধ্বসের সংবাদটা প্রথম যাঁরা জানতেন এবং জানাতেন তারা না থাকলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসহীন কোনো এক দ্বীপের মানুষ হয়ে যাবো আমরা।

তবে মাঝে মাঝে তার মধ্যে বিদ্যাসাগর, রবীন্দ্রনাথের দীর্ঘশ্বাসও শুনেছি। প্রচণ্ড আন্তরিকতা, পরিশ্রম ও মেধা দিয়ে যে প্রতিষ্ঠানগুলো তিনি গড়তে চেয়েছিলেন, সেগুলোতে তার স্বপ্ন সব সময় প্রতিফলিত হয় নি। যদিও এইসব মানুষের স্বপ্নের সীমানা অনেক বড়। অনেক মানুষের মধ্যেও তার স্বপ্ন বাসা বেঁধেছিল, তারপর ভেঙে খান খানও হয়ে গেছে।

তারপর রাষ্ট্র আর সরকার মিলে সমাজটাকেও যেখানে নিয়ে গেলো তাতে দর্শক হওয়া চাড়া আর কিছু অবশিষ্ট থাকে না।

তবুও ব্যাগটা কাঁধে ঝুলিয়ে ছুটছেন একজন ওয়াহিদুল হক, যেন একালের একজন বড় সক্রেটিস। শিল্পের মানদণ্ডে দেখতে চাইছেন ন্যায়বোধ, নীতিবোধ, মূল্যবোধকে।

এসব মানুষের আবার যাত্রা হয় অন্তহীন ... সেই অন্তহীন যাত্রাপথে আমরাও সহযাত্রী হতে চাই যেখানে হৃদয় মাঝে অভয় বাজে।

মামুনুর রশীদ ( This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it. ) : নাট্যজন